Saphala Ekadashi 2022 Date Time: সফলা একাদশী এর সময়সূচি ও ব্রত মাহাত্ম্য

Do you want to know Saphala Ekadashi 2022 Date, Parna Time, or more information? So here is the full date and time for Sophola Ekadashi 2022 (সফলা) according to the Hindu Calendar.

As you guys know that, Ekadashi is auspicious fasting day observed on the 11th Day. That’s why it is called Ekadashi. Saphala Ekadashi is the fasting day observed on the 11th day of the Krishna Paksha (the waning phase of moon) during the Bengali month of ‘Paush’ in the Hindu calendar.

Saphala Ekadashi 2022

But it is celebrated between the months of December to January according to the Gregorian calendar. This year two Saphala Ekadashi will be celebrate. However, let’s check Saphala Ekadashi 2022 date and time.

Saphala Ekadashi 2022 Date and Time

If you fasting on Ekadashi and do not want to miss any of them, so you will be looking for Sophola Ekadashi 2022 Timing. One of our readers also asked the same question on our Facebook Page.

Now we are going to share the full date and time of Saphala Ekadashi 2022. As we already mentioned that, this Ekadashi celebrated on the Bengali Month ‘Paush’ and the months of December to January as per the Gregorian calendar. We have added the festival date and timing here as per Dharma Sindhu. So, here is Saphala Ekadashi Time Table.

  • Festival Name: Saphala Ekadashi (সফলা একাদশী)
  • Festival Date: 09 January 2022
  • Day: Saturday
  • Ekadashi Tithi Begins: 10:10 PM on 08 January 2022
  • Ekadashi Tithi Ends: 07:47 PM on 09 January 2022

So, that’s was the full date and timing for Sophola Ekadashi. We hope you guys will be successfully understood about this. However, let’s check the Parna Time.

Saphala Ekadashi 2022 Parna Time

Parna Time is the most important thing for every Ekadashi. That’s why we always try to share Parna Time of Saphala Ekadashi.

  • Parna Date: 10 January 2022
  • Parana Time: 06:43 AM to 08:52 AM
  • Dwadashi End Moment: 05:22 PM

আরো পড়ুন: একাদশী পারন মন্ত্র

Now you will be happy to get the parna time from the above discussion. Although, Ekadashi and Parna Time is simply different according to the ISKCON Rules. You may also check it from below.

ISKCON Saphala Ekadashi 2022 Full Time

The timing of Saphala Ekadashi is simply different on ISKCON. That’s why here we have included the full date and time here.

  • Festival Date: 09 January 2022
  • Day: Saturday
  • Ekadashi Tithi Begins: 10:10 PM on 08 January 2022
  • Ekadashi Tithi Ends: 07:47 PM on 09 January 2022

ISKCON Saphala Ekadashi 2022 Parna Time

  • Parna Date: 10 January 2022
  • Parana Time: 06:43 AM to 10:18 AM

Note: This Saphala Ekadashi 2022 Time is applicable for Bangladesh. If you from India or Nepal, so the time will be change according to the time zone.

  • For India: you have to less 30 Minutes
  • For Nepal: You have to less 15 Minutes

Also Check: Nag Panchami 2022 Date

সফলা একাদশী ব্রত মাহাত্ম্য

Radha Krishna Pic

পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষের একাদশীর নাম ‘সফলা’। ব্রহ্মান্ডপুরাণে যুধিষ্ঠির শ্রীকৃষ্ণ সংবাদে এই তিথির মাহাত্ম্য বর্ণিত হয়েছে।
যুধিষ্ঠির বললেন- হে প্রভু! পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষীয়া একাদশীর নাম, বিধি এবং পূজ্যদেবতা বিষয়ে আমার কৌতুহল নিবারণ করুন।

শ্রীকৃষ্ণ বললেন- হে মহারাজ! আপনার প্রতি স্নেহবশত সেই ব্রত কথা বিষয়ে বলছি। এই ব্রত আমাকে যেরকম সন্তুষ্ট করে, বহু দানদক্ষিণাযুক্ত যজ্ঞাদি দ্বারা আমি সেইরকম সন্তুষ্ট হই না। তাই যত্নসহকারে এই ব্রত পালন করা কর্তব্য।

পৌষ মাসের কৃষ্ণপক্ষীয়া একাদশীর নাম ‘সফলা’। নাগদের মধ্যে যেমন শেষনাগ, পক্ষীদের মধ্যে গরুড়, মানুষের মধ্যে ব্রাহ্মণ, দেবতাদের মধ্যে নারায়ণ সর্বশ্রেষ্ঠ; তেমনই সকল ব্রতের মধ্যে একাদশী ব্রতই সর্বশ্রেষ্ঠ। হে মহারাজ! যারা এই ব্রত পালন করেন, তারা আমার অত্যন্ত প্রিয়। তাদের এজগতে ধনলাভ ও পরজগতে মুক্তি লাভ হয়। হাজার বছর তপস্যায় যে ফল লাভ হয় না, একমাত্র সফলা একাদশীতে রাত্রি জাগরণের ফলে তা অনায়াসে প্রাপ্ত হওয়া যায়।

Story

মহিষ্মত নামে এক রাজা প্রসিদ্ধ চম্পাবতী নগরে বাস করতেন। রাজার চারজন পুত্র ছিল। কিন্তু তাঁর জ্যেষ্ঠ পুত্র লুম্ভক সর্বদা পরস্ত্রীগমন, মদ্যপান প্রভৃতি অসৎ কার্যে রত ছিল। সে সর্বক্ষণ ব্রাহ্মণ, বৈষ্ণব ও দেবতাদের নিন্দা করত। পুত্রের এই আচরণে ক্ষুব্ধ হয়ে রাজা তাকে রাজ্য থেকে বার করে দিলেন। স্ত্রী-পুত্র, পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজন পরিত্যক্ত হয়ে সে এক গভীর বনে প্রবেশ করল।

সেখানে কখনও জীবহত্যা আবার কখনও চুরি করে জীবন ধারণ করতে লাগল। কিছুদিন পরে একদিন সে নগরে প্রহরীদের কাছে ধরা পড়ল। কিন্তু রাজপুত্র বলে সেই অপরাধ থেকে সে মু্ক্তি পেল। পুনরায় সে বনে ফিরে গিয়ে জীবহত্যা ও ফলমূল আহার করে দিন যাপন করতে লাগল।

ঐ বনে বহু বছরের পুরানো একটি বিশাল অশ্বত্থ বৃক্ষ ছিল। সেখানে ভগবান শ্রীবাসুদেব বিরাজমান বলে বৃক্ষটি দেবত্ব প্রাপ্ত হয়েছে। সেই বৃক্ষতলে পাপবুদ্ধি লুম্ভক বাস করত। বহুদিন পর তার পূর্বজন্মের কোন পুণ্য ফলে সে পৌষ মাসের দশমী দিনে কেবল ফল আহারে দিন অতিবাহিত করল। কিন্তু রাত্রিতে অসহ্য শীতের প্রকোপে সে মৃতপ্রায় হয়ে রাত্রিযাপন করল।

পরদিন সূর্যোদয় হলেও সে অচেতন হয়েই পড়ে রইল। দুপুরের দিকে তার চেতনা ফিরল। ক্ষুধা নিবারণের জন্য সে অতিকষ্টে কিছু ফল সংগ্রহ করল। এরপর সেই বৃক্ষতলে এসে পুনরায় বিশ্রাম করতে থাকল। রাত্রিতে খাদ্যাভাবে সে দুর্বল হয়ে পড়ল। সে প্রাণরক্ষার্থে ঈশ্বরের উদ্দেশ্যে ফলগুলি নিয়ে-‘হে ভগবান! আমার কি গতি হবে’ বলে অশ্রুপাত করতে করতে সেই বৃক্ষমূলে, ‘হে লক্ষ্মীপতি নারায়ণ! আপনি প্রসন্ন হোন’ বলে নিবেদন করল। এইভাবে সে অনাহারে ও অনিদ্রায় সেই রাত্রি যাপন করল।

ভগবান নারায়ণ সেই পাপী সুম্ভকের রাত্রি জাগরণকে একাদশীর জাগরণ এবং ফল অর্পণকে পূজা বলে গ্রহণ করলেন। এইভাবে অজ্ঞাতসারে লুম্ভকের সফলা একাদশী ব্রত পালন হয়ে গেল। প্রাতঃ কালে আকাশে দৈববাণী হল-হে পুত্র, তুমি সফলা ব্রতের পুণ্য প্রভাবে রাজ্য প্রাপ্ত হবে।

সেই দৈববাণী শোনামাত্র লুম্ভক দিব্যরূপ লাভ করল। তার পাপবুদ্ধি দূর হল। সে পুনরায় নিষ্কণ্টক রাজ্য লাভ করল। স্ত্রীপুত্রসহ কিছুকাল রাজ্যসুখ ভোগের পর পুত্রের ওপর রাজ্যের ভার দিয়ে সে সন্ন্যাস আশ্রম গ্রহণ করল। অবশেষে মৃত্যুকালে সে অশোক অভয় ভগবানের কাছে ফিরে গেল।

হে মহারাজ! এভাবে সফলা একাদশী যিনি পালন করেন, তিনি জাগতিক সুখ ও পরে মুক্তি লাভ করেন। এই ব্রতে যারা শ্রদ্ধাশীল, তাঁরাই ধন্য। তাঁদের জন্ম সার্থক, এতে কোন সন্দেহ নেই। এই ব্রত মাহাত্ম্য পাঠ ও শ্রবণে মানুষের রাজসূয় যজ্ঞের ফল লাভ হয়।

About Ekadashi

According to the Wikipedia, Ēkādaśī (“Eleventh”), also spelled as Ēkādaśi, is the eleventh lunar day (tithi) of each of the two lunar phases which occur in an vedic calendar month – the Shukla Pakṣa (the period of the brightening moon also known as the waxing phase) and the Kṛṣṇa Pakṣa (the period of the fading moon also known as the waning phase).

It is according to the Vedic medical texts of Ayurveda and is mentioned in detail in many original treatises such as Charaka Samhita and Susruta Samhita.

Conclusion:

That’s was all about Saphala Ekadashi 2022 Date, Parna Time for Bangladesh, India, and Nepal. We hope you guys will be successfully understood this article.

If you liked this article, so please try to share it with your friends. Thank you very much for being with Sonatoni.Com.

By Editorial Team

Thanks for visiting Sonatoni.Com.

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *