ভগবান কৃষ্ণের গায়ের রং নীল কেনো? জেনে নিন সঠিক তথ্য

আপনি কি জানেন ভগবান কৃষ্ণের গায়ের রং নীল কেনো? অথবা কেউ আপনাকে এই প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করেছে? তাহলে জেনে নিন সঠিক তথ্য।

সবাইকে প্রণিপাত! আশা করি সকলেই ভালো আছেন। একদিন আমার এক বন্ধু আমাকে জিজ্ঞাসা করলো ”ভগবান কৃষ্ণের গায়ের রং বা বর্ণ নীল কেনো”? তাই তাকে সঠিক তথ্য দিয়ে বুঝানোর জন্য এবং আপনাদের জানানোর জন্য এই আর্টিকেল লিখতে বসেছি। Blue Color of Lord Krishna.

Why Lord Krishna Blue

আপনারা এই আর্টিকেল থেকে জনতে পারবেন ভগবান কৃষ্ণের গায়ের রং বা মুখের রং নীল কেনো!

ভগবান কৃষ্ণের গায়ের রং নীল হবার কারণ

আপনারা অনেকেই হয়তো জানেন, শ্রীকৃষ্ণ আসলে বিষ্ণুর একটি অবতার। তবে শ্রীকৃষ্ণের গায়ের রঙ কেন নীল সে বিষয়ে অধিকাংশ মানুষই জানেন না।

আমরা শ্রীকৃষ্ণকে ভগমান বিষ্ণু অবতার বলে মনে করি। শ্রীকৃষ্ণে গায়ের রঙ আমরা নীল বলে জানি। কিন্তু কেন কৃষ্ণের গায়ের রঙ নীল এই নিয়ে নানা ধরনের মতামত প্রচলিত আছে। দেখে নিন সকল তথ্য!

১. পৌরাণিক কাহিনী মতেঃ

পৌরাণিক কাহিনী অনুযায়ী শ্রীকৃষ্ণ বিষ্ণু অবতার। আর তাই ভগবান বিষ্ণু সর্বদায় গভীর সমুদ্রে বসবাস করেন। ভগবান বিষ্ণুর এই সাগরে বসবাস করার জন্যেই শ্রীকৃষ্ণের গায়ের রঙ নীল হয়েছে।

২য় কাহিনীঃ

আরেকটি কাহিনী হল যে ছোটবেলায় কৃষ্ণকে মারার জন্যে মামা কংশ পূতনা নামক এক রাক্ষসীকে পাঠায়।

ওই রাক্ষসি কৃষ্ণকে বিষ মেশানো দুগ্ধ পান করায়। যেহেতু কৃষ্ণ দেব অবতার তাই কৃষ্ণের মৃত্যু হয় না। আর এই বিষের কারনেই তার গায়ের রঙ নীল হয়ে যায়।

৩য় কাহিনীঃ

তৃতীয় আরেকটি কাহিনী হল যে যমুনা নদীতে কালিয়া নাগ নামক এক নাগরাজ বসবাস করতেন যার উপদ্রবে বকুলের গ্রামবাসীরা সমস্যায় পরেছিলেন। এই সমস্যা থেকে গ্রামবাসীকে রক্ষা করতে গিয়ে কালিয়া নাগের সাথে কৃষ্ণ যুদ্ধে বিরত হন। যুদ্ধরত অবস্থায় কালিয়া নাগের থেকে নির্গত বিষের প্রকোপে শ্রীকৃষ্ণের গায়ের রঙ নীল হয়ে যায়।

শ্রী কৃষ্ণের জন্ম হয়েছিল বিশ্বের সকল দুষ্টদের দমন করে ধর্ম প্রতিষ্ঠা করার জন্য।আর বলা হয় যে শ্রীকৃষ্ণের এই নীল রঙ শুধু তারায় দেখতে পারেন যারা সত্যিকারের শ্রীকৃষ্ণের ভক্ত।

লেখাটি ভালো লাগলে শেয়ার করতে ভুলবেন না। সনাতন ধর্ম সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানতে আমাদের ওয়েবসাইট Sonatoni.Com বুকমার্ক করে রাখুন

Published
Categorized as Story

By Editorial Team

Thanks for visiting Sonatoni.Com.

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *